নবম শ্রেণির বাংলা কলিঙ্গদেশে ঝড়-বৃষ্টি অধ্যায় এর কিছু গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন ও উত্তর । bengali class 9 question and answer.

আজকে আমার নবম শ্রেণির একটি গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায় এর কিছু প্রশ্ন ও উত্তর নিয়ে আলোচনা করব।

নবম শ্রেণির বাংলা  প্রশ্ন ও উত্তর


কমবেশি ১৫০ টি শব্দের মধ্যে উত্তর । প্রতিটা প্রশ্নের মান - ৫

(১) বিপাকে ভবন ছাড়ি প্রজা দিল রড় ।- রড় শব্দের অর্থ কি ? কোথাকার প্রোজার কথা বলা হয়েছে ? বিপাকের স্বরূপ বিশ্লেষণ করো।

উত্তর
উদ্ধিতা অংশটি মুকুন্দরাম চক্রবর্তীর কলিঙ্গদেশে ঝড়-বৃষ্টি নামক কবিতার অংশবিশেষ। উদ্ধিতা অংশে রড় শব্দটির অর্থ ছুট বা দৌড়। ঈশান কোনের বিদ্যুৎ চমকিত মেঘ উত্তুরে বাতাসে সংস্পর্শে তীব্র তা পেয়ে সমগ্র কলিঙ্গের প্রাকৃতিক কে উচ্চ নাদি মেঘের গর্জনের সাথে মুষলধারে বৃষ্টিপাত ঘটায় সঙ্গে প্রচন্ড ঝড় বইতে থাকে । জলে কলিঙ্গ প্লাবিত হয়ে পথঘাট কিছুই বোঝা যায় না। দিন রাতের মধ্যে পার্থক্য খুঁজে পাওয়া যায় না। তাই ভীতসন্ত্রস্ত কলিঙ্গ বাসি জৈমিনি মনিকে স্মরণ করে। বৃষ্টির প্রভাব সাপ পর্যন্ত তার গর্ত ছেড়ে জলে ঘুরে বেড়ায়। চাষের খেতের ফসল সব পচনধরে। ঢেউগুলি তো সব ঘরবাড়িগুলো দুমড়ে মুচড়ে ফেলে দেয়।

(২) অম্বিকা মঙ্গল গান শ্রী কবিকঙ্কন ।- অম্বিকা মঙ্গল এবং তার কবি শ্রী কবিকঙ্কন এর সংক্ষিপ্ত পরিচয় দাও । কলিঙ্গদেশের ঝড়-বৃষ্টি প্রাকৃতিক দৃশ্যের পরিচয় দাও ।


উত্তরঃ
মুকুন্দ চক্রবর্তী রচিত এই মঙ্গলা কাব্য প্রকৃতপক্ষে চণ্ডীমঙ্গল নামে পরিচিত । চন্ডীমঙ্গল কাব্যের নাম হিসাবে অম্বিকামঙ্গল শব্দটি ব্যবহৃত হয়নি । কিন্তু চন্ডীমঙ্গল গ্রন্থ মধ্যে বহুবার পদের শেষে অম্বিকামঙ্গল শব্দটি মুকুন্দ চক্রবর্তী ব্যবহার করেছেন । মুকুন্দের মায়ের নাম দেবকী । ছোটবেলা থেকে কবি মুকুন্দরাম লেখাপড়া সঙ্গে দেবতাদের নিত্য সেবা করতেন । তিনি সুখ কন্ঠের অধিকারী ছিলেন । ছোটবেলা থেকে নিজের রচনায় তিনি গাইতেন সংগীত হিসাবে ।

✅  ঈশান কোণে মেঘ সঞ্চারিত হয়ে মুহূর্তের মধ্যে কালিঙ্গ দেশের আকাশে ছেয়ে যেত । তারপর শুরু হলো বজ্রবিদ্যুৎ-সহ এক টানা সাত দিন বৃষ্টি । প্রকৃতির এই প্রলয় প্রজারা সব ঘরবাড়ি ছেড়ে পালাতে লাগল । দিন রাতের মধ্যে কোন পার্থক্য এখানে বোঝা যাচ্ছিল না । এই প্রলয়ের শঙ্কিত হয়ে কলিঙ্গ বাসি জৈমিনি মনি কে স্মরণ করেন।

(৩) নিরবধি সাত দিন বৃষ্টি নিরন্তর । - নিরবধি ও নিরস্তর শব্দ দুটির অর্থ লেখো । সাতদিন নিরন্তর বৃষ্টির ফলে প্রজাদের দুর্দশা যে ছবি কবি তুলে ধরেছেন তার বর্ণনা দাও ।


উত্তরঃ
মধ্যকার নিরবধি ও নিরন্তর শব্দটির অর্থ যথাক্রমে সীমাহীন ও অবিরাম।
✅  দেবী চণ্ডীর এক টানা সাতদিন সীমাহীন বর্ষণের ঝড়ের তাণ্ডবে কলিঙ্গের জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে পড়ে । বৃষ্টি আর মেঘের গর্জন এর ভিত হয়ে প্রজারা সব ঘর ছেড়ে পালাতে শুরু করলো । খেতের ফসল সব উল্টে পাল্টে পড়ে থাকল তাতে পচন ও ধরে গেল । জল ও স্থল ও পথ ঘাট আলাদা করে কিছু বোঝা যায় না । জলের সব রাস্তায় চড়ে বেড়ায় । আকাশে ঘন ঘন বাঝ পরে । বাজে এর শব্দ কেউ কারো কথা শুনতে পায় না । ভীতু হয়ে জয়মনি মুনিকে স্মরণ করেন । এক কথায় সাতদিন অবিরাম বৃষ্টিতে প্রজাদের দুর্দশা চরম অবস্থায় পৌছাই ।

কলিঙ্গদেশের ঝড়-বৃষ্টি অধ্যায়ের ১ নম্বরের প্রশ্ন ও উত্তর ।

(১) ঈশান বলতে বোঝায় ?
উত্তর - উত্তর পূর্ব কোণকে। 

(২) কলিঙ্গদেশে ঝড় বৃষ্টি কবিতাটি নেওয়া হয়েছে কোন কাব্যগ্রন্থ থেকে ?
উত্তর - চন্ডীমঙ্গল থেকে ।

(৩) চারিদিকে অন্ধকার হয়ে গেল কারণ ?
উত্তর - মেঘে ঢেকে গেছে আকাশ ।

(৪) হরিৎ শব্দের অর্থ কি ?
উত্তর - সবুজ ।

(৫) ধ্বনি পরিবর্তনের রীতি অনুসারে বরিষে কি ?
উত্তর - সৌর ভক্তির দৃষ্টান্ত ।

(৬) কারোর কথা সুনিতে না পায় কেন ?
উত্তর - মেঘের গর্জন ।

(৭) মহির শব্দটির প্রতিশব্দ কি ?
উত্তর - ধরা ।

(৮) কলিঙ্গের সমস্ত লোক জৈমিনি কে স্মরণ করে কারণ কি ?
উত্তর - তিনি বজ্রপাত নিবারণ করতে পারেন ।

(৯) বিপাকে ভবন ছাড়িয়া পৌঁছে দিল বড় । এখানে বড় শব্দটির অর্থ কি ?
উত্তর - দৌড়ানো ।

(১০) কবিতায় শিল্প পড়ার সঙ্গে তুলনা করা হয়েছে কিসের ?
উত্তর - ভাদ্র মাসে তাল পড়ার ।

(১১) কোন মাসে তাল পড়ে ?
উত্তর - ভাদ্র মাসে ।

(১২) কলিঙ্গ বাসি স্মরণ করেছিলেন কাকে ?
উত্তর - জৈমিনি মনিকে ।

(১৩) চণ্ডীর আদেশ কে পেয়েছিল ?
উত্তর - হনুমান ।

(১৪) নিরবধি শব্দের সন্ধি বিচ্ছেদ করো ?
উত্তর - নি: + অবধি ।

(১৫) চণ্ডীর হনুমানের প্রতি আদেশ ছিল কি ?
উত্তর - মঠ - অট্টালিকা ভান্ডার ।

(১৬) এখানে ঢেউ এর আয়তন কে তুলনা করা হয়েছে কিসের সঙ্গে ?
উত্তর - বিশাল পর্বতের সঙ্গে ।

(১৭) এখানে আছুক শব্দের অর্থ কি ?
উত্তর - থাকুক ।

(১৮) কার্য বাংলা শব্দ ভান্ডার অনুসারে কোন শব্দ ?
উত্তর - তৎসম শব্দ ।

(১৯) অম্বিকা মন্ডল গান গেয়েছেন কে ?
উত্তর - শ্রী কবিকঙ্কন ।


(২০) চাল বিদরিয়া কি পড়ছে ?
উত্তর - শিল ।

(২১) নিরবধি শব্দটির অর্থ কি ?
উত্তর - সীমাহীন ।

(২২) কবি মুকুন্দরাম চক্রবর্তী কোন সময়ের মানুষ ?
উত্তর - ষোড়শ শতাব্দী ।

(২৩) কারা ধুলোয় আচ্ছাদিত হয়েছিল ?
উত্তর - সবুজ মাঠ প্রান্তর গাছপালা ।

Post a Comment

0 Comments