Header Ads Widget

চতুর্থ শ্রেণীর বাংলা অ্যাক্টিভিটি টাস্ক এর সমস্ত প্রশ্ন এবং উত্তর পার্ট 1 । Class 4 model activity task bengali part 1 । মালগাড়ি' কবিতার কথক কেন ......

আজকে আমরা আলোচনা করব চতুর্থ শ্রেণীর বাংলা অ্যাক্টিভিটি টাস্ক এর সমস্ত প্রশ্ন এবং উত্তর নিয়ে পার্ট 1.

চতুর্থ শ্রেণীর বাংলা অ্যাক্টিভিটি টাস্ক এর সমস্ত প্রশ্ন এবং উত্তর পার্ট 1 


 চতুর্থ শ্রেণীর বাংলা অ্যাক্টিভিটি টাস্ক এর সমস্ত প্রশ্ন এবং উত্তর পার্ট 1 । Class 4 model activity task bengali part 1






নীচের প্রশ্নগুলির উত্তর নিজের ভাষায় লেখা :

(১) গর্তের ভিতর কে ও?- এই প্রশ্নের উত্তরে ছাগলছানা কী বলেছিল ?

উত্তর :- লম্বা লম্বা দাড়ি ।
ঘন ঘন নাড়ি
সিংহের মামা আমি নরহরি দাস ।
পঞ্চাশ বাঘে মোর এক - এক গ্রাস ।

(২) কীভাবে ইয়াসুয়াকি - চান টেলিভিশন যন্ত্রটির সঙ্গে তােত্তো - চানের পরিচয় ঘটিয়েছিল ?

উত্তর :- জানো আমার দিদিতো আমেরিকায় থাকে ও বলছে ওদের নাকি টেলিভিশন বলে একটা জিনিস আছে , ইয়াসুয়াকি চান খুব উৎসাহের সঙ্গে বললো । ও বলছে জাপানে যখন টেলিভিশন আসবে তখন আমরা বাড়ি বসেই সুমো পালোয়ানদের দেখতে পাবো । টেলিভিশন নাকি একটা বাক্সের মতন আমার দিদি বলেছে ।

(৩) পটগুলটিশ ওয়ার কী ?


উত্তর :- লেখিকা পূর্ণলতা চক্রবর্তীর তার ছেলেবেলার দিন গুলির গল্পে জানিয়েছেন তারা জেঠতুতো , খুড়তুতো , পিচতুতো, মেতেছিলেন ছাদের এক কোণে গঙ্গা মাটি জড়ো করা ছিল । লেখিকারা তাই দিয়ে গোলাগুলি করিয়ে একরকম যুদ্ধ শুরু করেছিলেন । পরবর্তী কালে লেখিকা দুষ্টুমি করে নরম কাঁদার গুলিকে লাল করে পুড়িয়ে নিয়ে এমন খেলা শুরু করলেন যে দুই পক্ষই আহত হয়ে যায় ।

(৪) মালগাড়ি' কবিতার কথক কেন মালগাড়ি হতে চায় ?

উত্তর :-
কবি প্রেমেন্দ্র মিত্র তার মালগাড়ি কবিতা জানিয়েছেন তিনি অন্য সবকিছু ছেড়ে মালগাড়ি হতে চান । এর পিছনে তিনি অনেক অবশ্যই কারণ জানিয়েছেন । প্যাসেঞ্জার ট্রেন বা মেল ট্রেন শুধু কাজের ধান্দায় নিয়েই থাকে । তারা স্টেশন পাওয়া মাত্রই যাত্রী ওঠানো নামানোর কাজ শুরু করে আর লেট হয়ে যাওয়ার ভয় সর্বোদায় তাদের পিছনে ধাওয়া করে । কিন্তু কবি যদি মালগাড়ি হন তাহলে তিনি নিজের খুশিতে চলাফেরা করতে পারবেন । টাইমটেবিল দেখার তার কোন প্রয়োজন থাকবে না । তিনি যত দূরে যেখানেই যান না কেন সমস্ত রেললাইনের ওপর শুধু তারই অধিকার থাকবে ।

(৫). লুশাই পাহাড়ের বড়াে ভয়ংকর জায়গাটির পরিচয় দাও।


উত্তর :-
লেখক প্রমদারঞ্জন রায় তার বনের খবর গল্পে জানিয়েছেন লুম্যায় পাহাড়ে যে জায়গা কাজ ছিল সে বড় ভয়ঙ্কর জায়গা তার মধ্যে একটা গ্রাম নেই, পথ নেই । লুমাই বন কেটে পথ করে আগে চলে তবে আর সবাই আগতে পারে । সে ঘোর বনে মানুষের নাম গন্ধ নেই , শুধুই পশু কিলিবিলি ।

(৬). মূর্ধণ্যধ্বনি বলতে কী বােঝ ?


উত্তর :-
যেসকল ধ্বনি উচ্চারণের সময় জিহ্বা মূর্ধায় পার্শ্ব করে সেইসব ব্যঞ্জনধ্বনি কে মূর্ধণ্যধ্বনি বলে ।

যেমন :- ট, ঠ , ড , ঢ , ড় , ঢ় ।