ষষ্ঠ শ্রেণীর ভূগোলের প্রথম সামেটিভ | ভারতের কয়েকটি বিশ্ব প্রাকৃতিক ঐতিহ্যপূর্ণ স্থানের নাম | কৌণিক দূরত্ব এবং রৈখিক দূরত্বের মধ্যে পার্থক্য

আমরা ষষ্ঠ শ্রেণীর ভূগোলের প্রথম সামেটিভ পরীক্ষার জন্য কিছু গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন উত্তর নিয়ে আলোচনা করব। ক্লাস সিক্সের ভূগোল এর এই প্রশ্নগুলি আগামী পরীক্ষার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

ষষ্ঠ শ্রেণী ভূগোল প্রশ্ন উত্তর


ষষ্ঠ শ্রেণী ভূগোল প্রশ্ন উত্তর

ক্লাস সিক্স ভূগোল প্রথম সামেটিভ পরীক্ষা মডেল প্রশ্নোত্তর

1. এরাটোস্থেনিস একজন - গ্রিক / জার্মান / রোমান / ভারতীয় দার্শনিক।

উত্তর: গ্রীক দার্শনিক।

2. প্রথম কোন ভারতীয় মহিলা মহাকাশচারী মহাকাশে যান- কল্পনা চাওলা / ভ্যালেন্তিনা তেরেসকোভা / সুনিতা উইলিয়াম / রাকেশ শর্মা।

উত্তর : কল্পনা চাওলা।

3. কক্ষপথ ও কক্ষ তল যে চলে আছে তা হলো- একই তল / পৃথক তল / বিপরীত তল / কোনোটিই নয়।

উত্তর: একই তল


B. শূন্যস্থান পূরণ করো।

1. ব্রহ্মপুত্র নদ ____ রাজ্য দিয়ে ভারতে প্রবেশ করেছে।

উত্তর: অসম।

2. ভারতের প্রধান সংযোগকারী ভাষা ____।

উত্তর:  ভারতের প্রধান সংযোগকারী ভাষা হল হিন্দি।


C. অনধিক 30 টি শব্দে উত্তর দাও।

1. ভারতের কয়েকটি বিশ্ব প্রাকৃতিক ঐতিহ্যপূর্ণ স্থানের নাম লেখ।

উত্তর: ভারতের বিশ্ব প্রাকৃতিক ঐতিহ্যবাহী স্থান হল -

সুন্দরবন: সুন্দরবন জাতীয় উদ্যান বঙ্গোপসাগরের তীর ঘেঁষে গাঙ্গেয় বদ্বীপ অঞ্চলে অবস্থিত ।একটি জাতীয় উদ্যান, ব্যাঘ্রপ্রকল্প, UNESCO বিশ্ব ঐতিহ্যবাহী স্থান ও একটি বায়োস্ফিয়ার রিজার্ভ। 

নন্দাদেবী শৃঙ্গ : নন্দাদেবী শৃঙ্গ হিমালয় অঞ্চলে অবস্থিত। এটি মনোরম পুষ্পভূমি ও নয়নাভিরাম প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের জন্য খ্যাত। 

কাজিরাঙ্গা অভয়ারণ্য: কাজিরাঙা অভয়ারণ্য ভারতের  অসমের ব্রহ্মপুত্র নদের ডান তীরের প্লাবন সমভূমিতে অবস্থিত। ১৯৮৫ সালে এর  প্রাকৃতিক পরিবেশের কারণে এই বনাঞ্চল UNESCO দ্বারা বিশ্ব ঐতিহ্যবাহী কেন্দ্রের মর্যাদা পায়।


D. অনধিক 50 টি শব্দে উত্তর দাও।

1. কৌণিক দূরত্ব এবং রৈখিক দূরত্বের মধ্যে পার্থক্য লেখ।


E. অনধিক 80 টি শব্দে উত্তর লেখ।

1. ভারতের উপকূলীয় সমভূমি অঞ্চলের বিবরণ দাও।

ভারতের দক্ষিণের উপদ্বীপীয় সমভূমির পশ্চিমে রয়েছে আরব সাগর ও পূর্ব দিকে বঙ্গোপসাগর। এই দুটি সাগরের তীর বরাবর গড়ে উঠেছে ভারতের উপকূলীয় সমভূমি।পশ্চিমঘাট পর্বতমালা ও আরব সাগরের মধ্যবর্তী অংশ পশ্চিম উপকূলের সমভূমি এবং পূর্বঘাট পর্বতমালা ও বঙ্গোপসাগরের মধ্যবর্তী অংশ পূর্ব উপকূলের সমভূমি নামে পরিচিত। 

উপকূল অঞ্চলে বালি পলি নুরি জমা হয়ে উপকূলীয় সমভূমি সৃষ্টি হয়।

উপকূলীয় সমভূমি অঞ্চলের পাঁচটি ভাগে ভাগ করা হয়

◾পূর্ব উপকূলীয় সমভূমি এর অন্তর্গত

  1. করমন্ডল উপকূল
  2. উত্তর সরকার উপকূল

◾ পশ্চিম উপকূলীয় সমভূমি এর অন্তর্গত

  1. মালাবার উপকূল
  2. কঙ্কন উপকূল
  3. গুজরাট উপকূল

মালাবার উপকূলের উপহ্রদ গুলিকে কয়াল বলে।