মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক ষষ্ঠ শ্রেণীর ভূগোল পার্ট 4 । Class 6 Geography Model Activity Task Part-4 New. 2021 । তারার রঙের সঙ্গে উষ্ণতার সম্পর্ক......

মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক ষষ্ঠ শ্রেণীর ভূগোল পার্ট 4 । Class 6 Geography Model Activity Task Part-4 New. 2021 । তারার রঙের সঙ্গে উষ্ণতার
আজকে আমরা আলোচনা করব ষষ্ঠ শ্রেণীর ভূগোল মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক পার্ট 4 এর সমস্ত প্রশ্ন ও উত্তর নিয়ে । 2021


মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক ষষ্ঠ শ্রেণীর ভূগোল পার্ট 4


ষষ্ঠ শ্রেণীর ভূগোল মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক পার্ট 4


১. বিকল্পগুলি থেকে ঠিক উত্তরটি নির্বাচন করে লেখো :


১.১. ঠিক জোড়াটি নির্বাচন করো।
ক) গ্রহ - নিজস্ব আলো আছে
খ) গ্রহাণু - গ্রহের তুলনায় আয়তনে বড়
গ) উপগ্রহ - নক্ষত্রের আলোয় আলোকিত
ঘ) উল্কা - লেজবিশিষ্ট উজ্জ্বল জ্যোতিষ্ক

উত্তর - গ) উপগ্রহ - নক্ষত্রের আলোয় আলোকিত

১.২. নিরক্ষরেখার সমান্তরালে উত্তর গোলার্ধে বিস্তৃত কাল্পনিক রেখা হালো-

ক) মকরক্রান্তি রেখা
খ) কর্কটক্রান্তি রেখা
গ) মূলমধ্য রেখা
ঘ) কুমেরুবৃত্ত রেখা

উত্তর - কর্কটক্রান্তি রেখা

১.৩. নীচের যে রাজ্যটির ওপর দিয়ে কর্কটক্রান্তি রেখা বিস্তৃত সেটি হলো-
ক) অরুণাচল প্রদেশ
খ) মহারাষ্ট্র
গ) হিমাচল প্রদেশ
ঘ) পশ্চিমবঙ্গ

উত্তর - পশ্চিমবঙ্গ

২. বাক্যটি সত্য হলে 'ঠিক' এবং অসত্য হলে 'ভুল' লেখো :

২.১. গোলাকার পৃথিবী দ্রুত গতিতে আবর্তন করায় এটি মাঝ বরাবর স্ফীত।

উত্তর - ঠিক

২.২. ০° ও ১৮০° দ্রাঘিমারেখা প্রকৃতপক্ষে একটিই রেখা।

উত্তর - ভুল

২.৩. সূর্যের দৈনিক আপাত গতির মূল কারণ পৃথিবীর আবর্তন।

উত্তর - ঠিক

৩. সংক্ষিপ্ত উত্তর দাও ।

৩.১. তারার রঙের সঙ্গে উষ্ণতার সম্পর্ক লেখো।

উত্তর -
তারাদের রং থেকে আমরা তারাদের উত্তাপ বুঝতে পারি—[1] যেসব তারারা লালচে তারা সবচেয়ে কম উষ্ম ও এদের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি, [2] যেসব তারাদের রং মাঝারি হলুদ, সেইসব তারারা আর একটু বেশি উন্ন, [3] যেসব তারার রং নীল, তারা খুব উষ্ম এবং বেশ উজ্জ্বল, [4] যেসব নক্ষত্র সাদা রঙের হয় তারা সর্বাধিক উষ্ম এবং খুব বড়ো হয়।

৩.২. পৃথিবীর কাল্পনিক অক্ষ মেরুরেখা ও নিরক্ষরেখার সঙ্গে কত ডিগ্রি কোণে হেলে অবস্থান করছে তা এঁকে দেখাও।

উত্তর -    

মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক ষষ্ঠ শ্রেণীর ভূগোল পার্ট 4 । Class 6 Geography Model Activity Task Part-4 New. 2021 । তারার রঙের সঙ্গে উষ্ণতার সম্পর্ক......


৪. হিমালয়ের উত্তর থেকে দক্ষিণে বিস্তৃত তিনটি সমান্তরাল পর্বতশ্রেণির সংক্ষিপ্ত বর্ণনা দাও।

উত্তর - পূর্বঘাট পর্বতমালা - ভারতের পূর্ব উপকূল জুড়ে বিক্ষিপ্তভাবে অবস্থান করছে। উত্তরে পশ্চিমবঙ্গ থেকে শুরু করে দক্ষিণে তামিলনাড়ু পর্যন্ত এই পর্বত বিস্তৃত। গোদাবরী, মহানদী, কৃয়া, কাবেরী ইত্যাদি নদী এই পর্বতমালার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হয়েছে। পূর্বঘাট পর্বতমালার পশ্চিমে দাক্ষিণাত্য মালভূমি অবস্থিত। এখানে প্রচুর কফি উৎপাদিত হয়।

পশ্চিম ঘাট পর্বত মালা - ভারতের পশ্চিমদিকে উত্তরে যুক্তরাত ও মহারাষ্ট্র রাজ্যের শেষপ্রান্ত থেকে দক্ষিণে কন্যাকুমারিকা পর্যন্ত বিস্তৃত সুবিশাল পর্বতমালা পশ্চিমঘাট পর্বত নামে পরিচিত , সহ্য নীলগিরি, আন্নামালাই ইত্যাদি এই পর্বতমালার বিখ্যাত পাহাড় এই পর্বতমালার দক্ষিণে অবস্থিত আনাইমুদি (2.695 মিটার) হল এখানকার সর্বোচ্চ শৃঙ্গ। পশ্চিমঘাট পর্বতে অনেক জাতীয় উদ্যান, অভয়ারণ্য এবং সংরক্ষিত বনভূমি চিহ্নিত করা হয়েছে।

Post a Comment